শুক্রবার , ৭ জানুয়ারি ২০২২ | ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

প্রতিবেদক
ঠাকুরাগাঁও সংবাদ
জানুয়ারি ৭, ২০২২ ৯:২০ অপরাহ্ণ

বিকাশ ঘোষ, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বীরগঞ্জে শিশু সন্তানকে হত্যার ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে
ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি হোসেন আলী (৪২) গ্রেফতার হয়েছে।মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি ) দিনগত রাত
৮টায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের মুরারীপুর এলাকায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে
তাকে গ্রেফতার করে।এর আগে ৪ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ভুক্তভোগীর স্বামী বিল-াল হোসেনের ধর্ষিতা স্ত্রী
বাদী হয়ে হোসেন আলী, মোছা,ফজিলা বেগম নামের দুজনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৩/৪ কে আসামি করে
বীরগঞ্জ থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার পরেই আসামিদের গ্রেফতার করতে সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ
সুপার আব্দুল ওয়ারেজের নির্দেশে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রেজাউল করিম, এএসআই
মোহাম্মদ আলী ও গ্রিস চন্দ্র রায় অভিযান শুরু করেন। অন্যদিকে বীরগঞ্জ থানার সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স
নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানের মুখে পালিয়ে যাওয়ার সময় মুরারীপুর এলাকা থেকে প্রধান
আসামি হোসেন আলীকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার হোসেন বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে।
গ্রেফতার হোসেন আলী উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়ন গনপৈত গ্রামের মো.আব্দুল খালেকের ছেলে। ৩০
ডিসেম্বর গভীর রাতে বীরগঞ্জ উপজেলার শিবরামপুর আসামি কৌশলে ঘরে ঢুকে ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূর
সন্তানকে অপহরণ ও হত্যার ভয় দেখিয়ে তাকে ৩/৪ জন মিলে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন হোসেন আলী । পরে
অজ্ঞাতা নামা কয়েকজন মোবাইলফোনের মাধ্যমে গোপনে ভিডিও ধারন করে ইন্টারনেটে ভাইরাল করে
দেওয়ার হুমকি দেন। ধর্ষণের কাজে ধর্ষণকারীর স্ত্রী সহযোগিতা করে।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা
বীরগঞ্জ থানার এসআই রেজাউল বলেন, বিষয়টি শুনে সকালেই আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং
সকালে একজনকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে ওই নারীর ধর্ষণ মামলা রুজু করা হয়েছে। যাহার মামলা নং – ৪
তারিখ ৫/১/২০২২ ইং। মামলার প্রধান আসামি হোসেন আলী গ্রেফতার হয়েছে। এরির্পোট লেখা
পর্যন্ত ধর্ষিতা দিনাজপুর এম আব্দুল রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এমতাবস্থায়
ধর্ষিত ও তার পরিবার নিরাপত্তা হীনতায় ভূক্তছেন। এব্যাপারে এলাকার সুশীল সমাজেরা ধর্ষণকারীর শাস্তি
দাবি করেছেন।

সর্বশেষ - ঠাকুরগাঁও

আপনার জন্য নির্বাচিত