বৃহস্পতিবার , ১৬ মে ২০২৪ | ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার মর্যাদা বৃদ্ধি ও পেশাগত সমস্যা সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণে দিনাজপুরে আইডিইবি’র আহ্বান

প্রতিবেদক
ঠাকুরাগাঁও সংবাদ
মে ১৬, ২০২৪ ৮:১৭ অপরাহ্ণ

অপার সম্ভাবনার স্মার্ট সমৃদ্ধ বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নে জনশক্তির দক্ষতা উন্নয়নে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষার প্রসারে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আকৃষ্ট করার উদ্দেশ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সকে বিএসসি (পাস) সমমান মর্যাদা প্রদানের যে উদ্যোগে নিয়েছে, সেটিকে স্বাগত জানিয়েছে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনীয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি)।
বুধবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে আইডিইবি জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগকে সময়োপযোগী আখ্যায়িত করে এর দ্রæত বাস্তবায়নের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহŸান জানান।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আইডিইবি দিনাজপুর জেলা শাখার যুগ্ন সাধারন সম্পাদক প্রকৌশলী মো. সাজিউল ইসলাম।
লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগান্তকারী উদ্যোগ বাধাগ্রস্ত করার উদ্দেশ্যে প্রতিক্রিয়াশীল কতিপয় ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ার ও তাদের সংগঠন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন,বাংলাদেশ (আইইবি)’র পক্ষে যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখানো হচ্ছে, সেটি অনভিপ্রেত ও অগ্রহণযোগ্য। এ ধরনের জাতি বিনাশী কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার জন্য আইডিইবি সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহŸান জানা্িচ্ছ। তিনি আরও বলেন, ডেস্ক ও ফিল্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এ বিভক্ত দেশের প্রকৌশল কর্মাঙ্গনের সুষ্ঠু ধারাবাহিকতা বজায় রাখার স্বার্থে বিপুল পরিমান রাষ্ট্রীয় অর্থে শিক্ষিত ডিগ্রি প্রকৌশলীদের প্রকৌশল গবেষণা, উদ্ভাবনী ও পরিকল্পনায় মনোযোগ বাড়ানো প্রয়োজন। পাশাপাশি ডেস্ক ইঞ্জিনিয়ারিং-এ নিয়োজিত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের শিক্ষা আধুনিকায়ন ও দক্ষতা উন্নয়ন করা প্রয়োজন।
সংবাদ সম্মেলনে ৪ দফা দাবি জানানো হয়। দাবিগুলো হলো-কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষাকে জনপ্রিয় করার স্বার্থে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের মান ও মর্যাদা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিএসসি (পাস) কোর্সের সমমান মর্যাদা প্রদানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ অবিলম্বে বাস্তবায়ন। জাতীয় মেধার অপচয় রোধ ও প্রশাসনে শ্রেণী স্বার্থ দ্ব›দ্ব নিরসনে এবং রাষ্ট্রের অর্থ অপচয় রোধে প্রশাসনিক ক্যাডারে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং সনদধারীদের প্রবেশ রোধে পেশা পরিবর্তনের আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত রাষ্ট্রীয় আইনি কাঠামোর মাধ্যমে বন্ধ করা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রæত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের পদোন্নতির কোটা ৩৩% হতে ৫০% এ উন্নীতকরণ। এবং ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাথমিক নিযুক্তিতে অন্যান্য পেশাজীবীদের ন্যায় একটি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান, পরিকল্পনা ও নকশা বিভাগে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার (উপ-সহকারী প্রকৌশলী)-দেরকে সহকারী প্রকৌশলীদের ন্যায় ৩টি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান এবং ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং উত্তীর্ণদের ক্রেডিট ওয়েভার দিয়ে ২ বছরে ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করার সুযোগ প্রদান।
এছাড়াও ঘোষিত দাবি বাস্তবায়নে সংবাদ সম্মেলন থেকে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে আগামী ১৬ মে থেকে ২৩ মে-২০২৪ আইডিইবি জেলা নির্বাহী কমিটির উদ্যোগে সকল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের বাংলাদেশ কারিগরি ছাত্র পরিষদ (বাকাছাপ), বাংলাদেশ পলিটেকনিক শিক্ষক সমিতি, পেশাজীবী অন্যান্য সংগঠন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিক সংগঠনসহ সমাজের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় ও জনগণকে অবহিতকরণ, ১৯-২৩মে জেলার সকল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স সার্ভিস এসোসিয়েশনের উদ্যোগে স্ব স্ব প্রধান দপ্তরে প্রতিবাদ সভা ও শিক্ষামন্ত্রী সমীপে স্মারকলিপি প্রদান এবং ২৮ মে জেলা শাখার উদ্যোগে ছাত্র শিক্ষক ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের সমন্বয়ে প্রতিবাদ সভা এবং সভা শেষে বিক্ষোভ মিছিল ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী সমীপে স্মারকলিপি প্রদান।
সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন আইডিইবি জেলা শাখার সভাপতি প্রকৌশলী মো. মতিউর রহমান। এ সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন প্রকৌশলী মো. আকরাম আলী মিঞা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আমজাদ হোসেন, প্রকৌশলী মো. লুৎফুল কবির বকুল, মো. শহিদুল ইসলাম, মো. মিনারুল ইসলাম খান, মো. মাসুদ রানা, জিএন ভট্রাচার্য, মো. মোজাফফর হোসেন প্রমুখ।

সর্বশেষ - ঠাকুরগাঁও