রবিবার , ১৪ জানুয়ারি ২০২৪ | ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কনকনে শীতে খানসামায় বাড়ছে ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্টের রোগী

প্রতিবেদক
ঠাকুরাগাঁও সংবাদ
জানুয়ারি ১৪, ২০২৪ ৯:০২ অপরাহ্ণ

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি\ কনকনে শীতে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় বাড়ছে ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্টের রোগী। এ কারণে চিকিৎসা নিতে এসে অনেক রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হচ্ছে।
শনিবার খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে জানা গেছে, নারী, পুরুষ ও শিশু ওয়ার্ডে প্রতিদিন ৫০-৫৫জন রোগী ভর্তি হলেও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন ১০-১২ জন রোগী এবং শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ৭-৮জন রোগী ভর্তি হচ্ছে। ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেশি হলেও আন্তরিকতার সঙ্গে রোগীদের সেবা দিচ্ছেন হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স-মিডওয়াইফ ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। সেই সঙ্গে ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও কমিউনিটি ক্লিনিকে এখন রোগীর ভিড় বাড়ছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে আরও জানা গেছে, গত সপ্তাহ থেকে শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উপজেলায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে যায়। জরুরি বিভাগ ও বহির্বিভাগের প্রতিদিন গড়ে ৩৫-৪০ জন ডায়রিয়া রোগী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাসেবা নিচ্ছেন এবং ৯-১০ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হচ্ছে। এসবের সঙ্গে জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টের রোগীরাও বেশ আসছে।
উপজেলার বাহাদুর বাজার এলাকার খালেদা বেগম (৫০) গত বুধবার ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে আছেন। তিনি বলেন, ‘হঠাৎ করে ডায়রিয়া হওয়ায় হাসপাতালে এলে ডাক্তার ভর্তির পরামর্শ দেন। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের ট্রিটমেন্টে আগের চেয়ে এখন শারীরিক অবস্থা অনেকটা ভালো।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে দুই বছর বয়সী এক শিশুকে নিয়ে সেবা নিতে আসেন ছাতিয়ানগড় গ্রামের নূর মোহাম্মদ। চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ইনডোরে ভর্তি করান। তিনি আজকের পত্রিকাকে বলেন,ডায়রিয়া ও চেহারা ফ্যাকাশে হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করাইছি। এখন চিকিৎসা চলমান রয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক(আরএমও) শামসুদ্দোহা মুকুল বলেন, ‘আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে ডায়রিয়া রোগী বেড়েছে। এ সময় সবাইকে সচেতন থাকতে হবে এবং শিশুদের প্রতি যতœশীল হতে হবে। পাতলা পায়খানা শুরু হলে মুখে খাবার স্যালাইন বারবার খাওয়াতে হবে। প্রয়োজনে হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মলয় কুমার মন্ডল বলেন, আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী রোগীদের সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি। এতে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্তরিকতার ঘাটতি নেই।এছাড়া খোলা ও বাসি খাবার পরিহারের পাশাপাশি সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকারও পরামর্শ দেন এই কর্মকর্তা।
এদিকে রবিবারদেশের সর্বনি¤œ তাপমাত্রা দিনাজপুরে রেকর্ড করা হয়েছে ৮দশমিক ৫ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় বাতাসে আর্দ্রতা ছিল ৯০ভাগ। জেলায় এই সপ্তাহে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হতে পারে।বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা আরও কমে যেতে পারে বলে জেলা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান।

সর্বশেষ - ঠাকুরগাঁও

আপনার জন্য নির্বাচিত

হাবিপ্রবিতে “সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে অংশীজনের অংশগ্রহণ” বিষয়ক সভা

উন্নয়ন সহ্য করতে পারছে না বলেই বিএনপি জামায়াত অগ্নিসন্ত্রাস ও মানুষ হত্যা করছে ——হুইপ ইকবালুর রহিম

পাকেরহাটে ডেইলি চিলিং সেন্টার উদ্বোধন

নারীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে দিনাজপুরে সৌন্দর্য বিষয়ক প্রশিক্ষন কর্মশালা

ঠাকুরগাঁওয়ে এনটিভির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বীরগঞ্জে সার্ভিস ডেক্স ও গৃহ হস্তান্তরের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

চিরিরবন্দরে ভোটগ্রহণকারী  কর্মকর্তাদের দুইদিনব্যাপি প্রশিক্ষণ

চিরিরবন্দরে ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তাদের দুইদিনব্যাপি প্রশিক্ষণ

পুলিশের গুলিতে নিহত শিশু’র বাড়ীতে বিএনপি’র প্রতিনিধি দল

রহস্যে ঘেরা সেই বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলে এবার ২০ যাত্রীসহ জাহাজ নিখোঁজ!

ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা